1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : আল-আসিফ ইলাহী রিফাত : আল-আসিফ ইলাহী রিফাত
  8. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  9. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  12. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
তাদের মূল টার্গেট বয়স্ক অটোচালক!
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:১১ পূর্বাহ্ন

তাদের মূল টার্গেট বয়স্ক অটোচালক!

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৬৫ জন পড়েছেন

বয়স্ক চালক পেলেই পেলেই অটোরিকশা ভাড়া নেয় একটি চক্র। তারপর সবাই যাত্রী বেশে নির্ধারিত স্থানে নিয়ে জুসের সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ পান করিয়ে অটোরিকশাটি ছিনতাই করে। গ্রেফতারের পর ওই চারজন স্বীকার করেছে- তাদের মূল টার্গেট বিশেষ করে বয়স্ক অটোচালক।

অটোচালক শাহিনুর ইসলাম ১২ এপ্রিল ময়মনসিংহের গৌরীপুরে নিখোঁজ হন। তার লাশের সন্ধান মিলে ১৭ এপ্রিল ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

এ নিয়ে দৈনিক যুগান্তরে ১৮ এপ্রিল শেষপাতায় প্রকাশিত হয় ‘গৌরীপুরে নিখোঁজ অটোচালকের লাশ হাসপাতাল মর্গে’! এ ঘটনায় ১৯ এপ্রিল স্বামীর হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গৌরীপুর থানায় নিহতের স্ত্রী পারভীন আক্তার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

নিহত অটোচালক উপজেলার ডৌহাখলা ইউনিয়নের নন্দীগ্রামের আব্দুর রশিদের পুত্র।

এ হত্যাকাণ্ডকে ‘ক্লুলেস’ হওয়ায় মামলাটি তদন্তভার দেন ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহ কামাল আকন্দ জানান, হাসপাতালের সিসি ফুটেজের ছবি দেখে হত্যাকারীদের শনাক্ত করা হয়। একই কায়দায় এ চক্রটি গত ২৬ জুন নান্দাইল থানা এলাকা থেকে অটোচালক সাইদুল ইসলামকে চেতনা নাশক খাবার খাইয়ে অটোরিকশাটি ছিনতাই করে।

অটোচালক হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ শেষে নান্দাইল মডেল থানায় দায়ের করেন। এ ঘটনা ও সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার গাজীপুরের হোতাপাড়ার মনিপুর বাজারে অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- কুড়িগ্রাম জেলার ভূরুঙ্গামারী থানার পাথরডুবি গ্রামের আব্দুল হালিমের পুত্র মো. খোরশেদ আলম (৩৬), নেত্রকোণা জেলার কলমাকান্দা থানার হাটশিরা শিবনগর গ্রামের মো. সুরুজ আলীর পুত্র বকুল মিয়া (২৫), জীবন রহমানের স্ত্রী মোছা. ইয়াসমিন আক্তার (২৬), ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার কাদিরপুর গ্রামে ফয়জুল হকের (নজরুল ইসলাম) স্ত্রী মোছা. শেফালী বেগম (৩০)।

শুক্রবার আদালতে সোপর্দ করার পর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন কারা। গ্রেফতারকৃতদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার অভিযান চালিয়ে, নেত্রকোণার দুর্গাপুর উপজেলা থেকে ছিনতাইকৃত দুটি অটোরিকশা এবং একটি মোবাইল উদ্ধার করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতারকৃতরা স্বীকার করেছে তাদের মূল টার্গেট বিশেষ করে বয়স্ক অটোচালক। তারপর সবাই যাত্রী বেশে নির্ধারিত স্থানে নিয়ে জুসের সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ পান করিয়ে অটোরিকশা ছিনতাই।

জানা যায়, ডৌহাখলা ইউনিয়নের নন্দীগ্রামের আব্দুর রশিদের পুত্র শাহিনুর ইসলাম সোমবার অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যান। নিখোঁজের ঘটনায় তার স্ত্রী মোছা. পারভীন আক্তার গৌরীপুর থানায় মঙ্গলবার সাধারণ ডাইরি (জিডি) করেন। ১৭ এপ্রিল ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে তার লাশের সন্ধান মিলে।

গৌরীপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, শাহিনুর ইসলামকে ময়মনসিংহ হাসপাতালে কিশোরগঞ্জের কান্দিপাড়ার আবু তাহেরের পুত্র আব্দুস সালাম নামে ভুয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে হত্যাকাণ্ডটিকে আড়াল করার চেষ্টা করে এ চক্রটি।

সূত্রঃ জুগান্তর

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বাধিক জনপ্রিয়

টুইটারে আমরা

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড