তালশাঁস খাওয়ানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে শিশুকে বলাৎকার
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
তালশাঁস খাওয়ানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে শিশুকে বলাৎকার
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন

তালশাঁস খাওয়ানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে শিশুকে বলাৎকার

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১
  • ৭৭ জন পড়েছেন

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তবর্তী গ্রামে তালশাঁস খাওয়ানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে ৬ বছর বয়সী শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে। শিশুটি চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

সোমবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে নির্যাতনের শিকার শিশুকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুটি একই গ্রামের একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিশুশ্রেণির ছাত্র।

শিশুটির বাবা জানান, সোমবার বিকালে সে বাড়ির পাশের একটি মাঠে অন্য শিশুদের সঙ্গে খেলতে বের হয়। এ সময় একই গ্রামের রিহান আলির ছেলে রাকিব হোসেন (১৯) তাকে তালশাঁস খাওয়ানোর কথা বলে মাঠের মধ্যে হাফিজুরের আমবাগানে নিয়ে যায়। সেখানে জোরপূর্বক তাকে বলাৎকার করে। পরে বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য হুমকিও দেয়। পরে শিশুটি বাড়ি ফিরে ঘটনাটি তার মাকে খুলে বলে।

এর একপর্যায়ে সে ক্রমেই অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে গ্রামের পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায় আমার স্ত্রী। চিকিৎসক তাকে সদর হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন। পরে রাত ৮টার দিকে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। বিষয়টি নিয়ে থানায় মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি।

সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শাকিল আর সালান জানান, হাসপাতালে ভর্তির পর শিশুটি বেশ কয়েকবার বমি করেছে। তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলাৎকারের আলামত পাওয়া গেছে।

দামুড়হুদার দর্শনা থানার ওসি মাহাব্বুর রহমান কাজল জানান, বিষয়টি শুনেছি। শিশুটি চিকিৎসাধীন আছে। লিখিত কোনো অভিযোগ এখনো পাইনি। তারপরও অপরাধীকে আটকের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড