জাদুকাটার খেয়াতরীর ভাঙ্গা সড়কে জনদুর্ভোগ (ভিডিও)
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
জাদুকাটার খেয়াতরীর ভাঙ্গা সড়কে জনদুর্ভোগ (ভিডিও)
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ১১:১৯ অপরাহ্ন

জাদুকাটার খেয়াতরীর ভাঙ্গা সড়কে জনদুর্ভোগ (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১
  • ৭১ জন পড়েছেন

দেশ বিদেশের পর্যটক ভ্রমণ পিপাসুরা সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের দর্শনীয় স্থান গুলো দেখতে এসে সীমান্তনদী জাদুকাটার খেয়াতরী পাড়ি দেওয়ার পর ফের দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন বারেকটিলার ভাঙ্গা সড়কে চলাচল করতে গিয়ে।

১৯৯০ সাল পরবর্তী প্রায় তিন দশক পূর্বে তৎকালীন সংস্থাপন সচিব ড. শাহ মোহাম্মদ ফরিদের প্রচেষ্টায় জাদুকাটার নদীর বড়গোপ খেয়াঘাটের পশ্চিম উত্তর ঘেষা জনবিচ্ছিন্ন বারেকটিলার উপর দিয়ে চলাচলের জন্য ১ কিলোমিটার সরু পাকা সড়ক নির্মাণ করা হয়।  

ভুক্তভোগী ও স্থানীয় লোজনের অভিযোগ, গত দুই দশ পেরিয়ে গেলেও বারেকটিলার উপর থাকা (লাউরগড়-মহেষখোলা) আকাবাঁকা প্রায় ১ কিলোমিটার সরু সড়কটি সংস্কার, পুন:নির্মাণ কিংবা প্রশস্থ করা হয়নি।

উপজেলার জাদুকাটার নদীর লাউরগড় বড়গোপ খেয়াঘাট, বারেকটিলা এলাকায় সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় দেশ বিদেশের বিভিন্ন স্থান হতে সুনামগঞ্জ হয়ে তাহিরপুরের জাদুকাটা নদী, বারেকটিলা, জয়নাল আবেদীন শিমুল বাগান,রাজাই ঝরণাধারা, টেকেরঘাট শহীদ সিরাজ লেক, লাকমা ছড়া, লালঘাট ঝরণা ধারা, টেকেরঘাট স্কুল ঝরণা ধারা, টাঙ্গুয়ার হাওর দেখতে আসা নানা শ্রেণি পেশার লোকজন, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা সেতু না থাকায় লাউরগড় বাজারে এসে চার চাকার যানবাহন রেখে জীবন ঝুঁকি নিয়ে জাদুকাটার খেয়াতরী পাড়ি দিচ্ছেন।

কেউ কেউ ভাড়ায় চালিত কিংবা ব্যক্তিগত মোটরসাইলে নিয়ে খেয়াতরী পাড়ি দিয়ে প্রবেশ করছেন বারেকটিলায়। আবার টিলার নিচে অপেক্ষরত থাকছে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল,অটোরিক্সা সিএনজি।

বুধবার ভ্রমণে আসা চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আতাহারুল বাবরুল যুগান্তরকে বলেন,  বারেকটিলার উপর দিয়ে মোটরসাইকেল বা অটোরিক্সা নিয়ে চলাচলের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ঝুঁকি রয়েছে। কারণ টিলার সরু সড়কটিতে কয়েক’শ ভাঙ্গা গর্ত, আবার  সড়কটির  একাধিক স্থানে সিমেন্টের ঢালাই খসে গিয়ে অসংখ্য গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। দুটি মোটরসাইকেল বা অটোরিক্সা এ সরু সড়ক ক্রসকালে দুর্ঘটনাকে মেনে নিয়েই মানুষজনকে চলাচল করতে হচ্ছে।

উপজেলার রাজাই এলাকার বাসিন্দা বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ সম্পাদক এন্ড্রো সলোমার  জানান, প্রতিনিয়ত সরু সড়কের উপর মোটরসাইকেল, অটোরিক্সা দুর্ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে। এতে কেউ কেউ মারাত্মকভাবে আহত হয়ে পঙ্গুত বরণ করেছেন।

তিনি বলেন, জন চলাচলের এ ব্যস্ততম ভাঙ্গা সড়কটি প্রশস্থ করণ ও সংস্কারে সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ), স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)’র নজরই পড়েনি দুই যুগের বেশী সময়কাল ধরে।

তাহিরপুর কয়লা আমদানিকারক গ্রপের সভাপতি হাজি আলকাছ উদ্দিন খন্দকার বলেন, তাহিরপুরের বড়ছড়া, চারাগাঁও বাগলী এ তিন শুল্ক স্টেশনে সুনামগঞ্জ-নেত্রকোনা,ময়মনসিংহ সীমান্ত সড়ক হয়ে  হাজারো ব্যবসায়ী,শ্রমিক,সাধারণ মানুষজনকে বারেকটিলার উপর সরু সড়ক ব্যবহার করে যাতায়াত করতে হয়। কিন্তু বছরের পর বছর ধরে সওজ কিংবা এলজিইডির দায়িত্বশীলদের অনুরোধ করার পরও তারা মাত্র ১ কিলোমিটার সড়ক পুন:নির্মাণে কোন উদ্যোগই নিচ্ছেন না।

বুধবার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সুনামগঞ্জ ২৮ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্ণেল তসলিম এহসান পিএসসি যুগান্তরকে বলেন,বারেটিলার পশ্চিমে চাঁনপুর সহ মাটিরাবন অবধি ৭টি বিওপিতে থাকা বিজিবি সদস্যরা এমনকি ব্যাটালিয়ন হতে অফিসারগণ বারেকটিলার উপর থাকা সড়কটি ব্যবহার করে যাতায়াত করতে হয়, টিলার এ জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি দ্রুত প্রশস্থ করলে সীমান্ত জনপদে যোগাযোগ ব্যবস্থার সুফল পাবেন সর্বমহল।

বারেকটিলার ভাঙ্গা সড়কে জনদুর্ভোগের ভিডিওচিত্র –

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড