কঠোর লকডাউনের ১ম দিন , চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় সর্বত্মক লকডাউন তৎপর প্রশাসন
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
কঠোর লকডাউনের ১ম দিন , চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় সর্বত্মক লকডাউন তৎপর প্রশাসন
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

কঠোর লকডাউনের ১ম দিন , চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় সর্বত্মক লকডাউন তৎপর প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১
  • ১১৭ জন পড়েছেন

জেলায় করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি এবং সীমান্তবর্তী জেলা হিসেবে সতর্র্কতায় করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় জেলা প্রশাসনের দেয়া ২৫ মে থেকে ৩১ মে পর্যন্ত ৭ দিনের কঠোর লকডাউন চলছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। সোমবার রাত ১২টা থেকেই লকডাউন কার্যকরে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ মাঠে কাজ করছে। জেলা শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে এবং জেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রশাসনের তৎপরতা দেখা গেছে। তারপরও মফস্বল এলাকার মানুষ মাক্স ছাড়াই চলাচল করছে এবং প্রশাসনের নির্দেশনা অমান্য করে বিভিন্ন দোকানপাট খোলা রেখেছে। মানছেনা স্বাস্থ্যবিধিও। চলছে গাদাগাদি করে মানুষ নিয়ে অটোবাইক। করোনা সংক্রমন ঠেকাতে এবং জেলার মানুষকে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষায় কঠোর লকডাউন সঠিকভাবে বাস্তবায়নে প্রয়োজন আরও বেশী বেশী প্রশাসনিক তৎপরতার। লকডাউনে দূরপাল্লার বাস ও ট্রেন বন্ধ রয়েছে। মার্কেট ও দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। এদিকে, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিক থেকে বিভিন্ন মফস্বল বাজারে অভিযান চালায় নির্বাহী ম্যজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের সদস্যরা। জেলা শহরে ৭ জন ও উপজেলা পর্যায়ে ৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিশেষ লকডাউন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন বলেও জানা গেছে। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্থলবন্দর সোনামসজিদ স্থলবন্দরে কার্যক্রম স্বাভাবিক গতিতেই চলছে। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লিয়াকত আলী শেখ জানান, জেলা শহরে ৭ জন ও উপজেলা পর্যায়ে ৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিশেষ লকডাউন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন।চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে সোমবার দুপুরে ২৫ মে থেকে ৩১ মে পর্যন্ত ৭ দিনের লকডাউন ঘোষণা করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসন। এক সংবাদ সম্মেলনে লকডাউনের ঘোষণা দেন জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ। সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী মঙ্গলবার জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জে করোনা সংক্রমণ বেড়ে রোগী শনাক্তের হার ৫০ শতাংশ। এরই মধ্যে ২৪ মে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় ২০২টি স্যাম্পল রেপিট এন্টিজেন টেস্ট করে ৮২টি পজেটিভ পাওয়া গেছে। যার মধ্যে সদরে ১২ জন, শিবগঞ্জে ২৬ জন, গোমস্তাপুর ৬ জন ও নাচোল উপজেলায় ৩৭ জন এবং ভোলাহাটে ১ জন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় বর্তমানে করোনা রোগী চিকিৎসাধিন রয়েছে ২৮৬ জন। জেলায় এ পর্যন্ত মোট ১৩৮৩ জনের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। আর ১ হাজার ২০ জন সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন এবং মারা গেছে ২৫ জন। ভারত থেকে সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে দেশে প্রবেশ করেছে মোট ৬৯জন। এর মধ্যে একজনের দেহে করোনা সনাক্ত হয়েছে। ভারত থেকে আসা মানুষদের সকলকে জেলা শহরের একটি আবাসিক হোটেলে এবং সোনামসজিদ ডাকবাংলোতে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। উল্লেখ্য, সারাদেশে লকডাউন চলাকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরে কিছুটা মানা হলেও মফস্বল এলাকায় কোন লকডাউনের চিত্র চোখে পড়েনি। স্বাভাবিক গতিতেই চলেছে সকল কার্যক্রম। পরেনি মাক্স, মানেনি স্বাস্থ্যবিধিও।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড