হাসপাতালে থাকতে চান বাবুল আকতার
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
হাসপাতালে থাকতে চান বাবুল আকতার
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৯:৪০ পূর্বাহ্ন

হাসপাতালে থাকতে চান বাবুল আকতার

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১
  • ৮১ জন পড়েছেন

স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলায় কারাবন্দি সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আকতার অসুস্থ দাবি করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আদালতে আবেদন করেছেন। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম সরোয়ার জাহানের আদালতে এ আবেদন করা হয়।

বাবুল আকতারের আইনজীবী মো. আরিফুর রহমান বলেন, বাবুল আকতার নানা রোগে ভুগছেন। তার চিকিৎসা প্রয়োজন। কারাগারে পর্যাপ্ত চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই। তাই আমরা কারাগারের বাইরে অন্য যেকোনো হাসপাতালে তার চিকিৎসার অনুমতি চেয়ে আদালতে আবেদন করেছি। আগামী রোববার এ বিষয়ে শুনানি হবে।

তিনি জানান, বাবুল আকতারের ফুসফুসে সমস্যা আছে। অনিয়মিত রক্তচাপে ভুগছেন। এ ছাড়া তার অ্যাজমা ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে। শারীরিক সমস্যার কারণে বাবুল গত জানুয়ারি থেকে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত রাজধানীর দুটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলেও জানান পুলিশের এই সাবেক কর্মকর্তার আইনজীবী।

২০১৬ সালের ৫ জুন ভোরে ছেলেকে স্কুলে পৌঁছে দিতে বের হওয়ার পর চট্টগ্রাম শহরের জিইসি মোড়ে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয় মিতুকে। তার স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আকতারের বিরুদ্ধে গত ১২ মে পাঁচলাইশ থানায় মামলা করেন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন। সেই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সেদিনই বাবুলকে আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে পাঠান।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

টুইটারে আমরা

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড