ডি ভিলিয়ার্সের না ফেরার কারণ জানালেন বাউচার
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
ডি ভিলিয়ার্সের না ফেরার কারণ জানালেন বাউচার
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন

ডি ভিলিয়ার্সের না ফেরার কারণ জানালেন বাউচার

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২০ মে, ২০২১
  • ৭৫ জন পড়েছেন

স্থগিত হয়ে যাওয়া আইপিএলে বিধ্বংসী ব্যাটিং করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা এবি ডি ভিলিয়ার্স। 

তার দুর্দান্ত ব্যাটিং দেখে অনেকের মাঝে প্রশ্ন জেগেছিল— এমন একজন পারফরমারকে রেখেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা! এমনিতেই আগের মতো তারকা সমৃদ্ধ দল নয় দ. আফ্রিকা।

এই গুঞ্জনের মধ্যেই আশার আলো দেখান ডি ভিলিয়ার্স নিজেই।  কোচ মার্ক বাউচার ও  বোর্ডের পরিচালক গ্রায়েম স্মিথকে খুশি করে জানান, অবসর ভেঙে দলে ফিরতে চাইছেন তিনি।

কিন্তু এমন সিদ্ধান্তের কয়েক দিন পার হতে না হতেই হুট করে সিদ্ধান্ত বদলে ফেলেন ডি ভিলিয়ার্স। অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিকে ফিরছেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন।

এতে অনেকটা মনক্ষুণ্ন হয়েছেন কোচ ও ভিলিয়ার্সের একসময়ের সতীর্থ মার্ক বাউচার!

হঠাৎ কী এমন হলো যে, মন বদলে গেল ডি ভিলিয়ার্সের? এর একটা কারণ ব্যাখ্যা করলেন বাউচার।

প্রোটিয়া কোচের মতে, অস্বস্তিতে জাতীয় দলে না ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স।

কী কারণে অস্বস্তিতে ভুগছেন ডি ভিলিয়ার্স, তার ব্যাখ্যায় কোচ জানান, দলে ঢুকতে হলে প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকা একজন ক্রিকেটারকে সরিয়ে জায়গা পেতে হবে।  এই প্রক্রিয়া পছন্দ নয় ভিলিয়ার্সের। তিনি চান না তার জন্য আর কারও কপাল পুড়ুক।

মার্ক বাউচার বলেন, ‘এবির নিজস্ব কারণ রয়েছে, যেটি আমি সম্মান করি।  যারা প্রক্রিয়ার অংশ, তাদের একজনের জায়গা নেওয়ার বিষয়টি ভালোভাবে নিতে পারছিল না সে।  আমার ধারণা, এই কারণে সে স্বস্তি পাচ্ছিল না। কোচ হিসেবে আমার চেষ্টা করা দরকার ছিল, এই প্রতিকুল পরিবেশ সামলে নিয়ে আমাদের সেরা খেলোয়াড়কে দলে আনার। এবি যে কোনো পরিবেশে প্রাণশক্তি বাড়িয়ে দেয়।  কিন্তু আমরা ব্যর্থ হয়েছি। আমি তার যুক্তিকে সম্মান করি। এখন তাকে ছাড়াই এগিয়ে যেতে হবে। দুর্ভাগ্যবশত সে আর আমাদের ভাবনায় নেই। আমি দুর্ভাগ্য বলছি, কারণ এখনও বিশ্বসেরা টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড়দের একজন সে।’

উল্লেখ্য, আইপিএল শেষেই জাতীয় দলে ফেরার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছিলেন ডি ভিলিয়ার্স।

গত এপ্রিলে তিনি বলেছিলেন— ‘গত বছর বাউচার আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল, আমি অবসর ভেঙে জাতীয় দলে ফিরতে আগ্রহী কিনা। আমি বলেছিলাম— হ্যাঁ, বেশ আগ্রহী। তবে আগে আইপিএল শেষ হোক।  ফর্ম ও ফিটনেসের দিক থেকে আমি কোথায় আছি, তা দেখি।  এর পর তো তুমি আমাকে নেবে।’

ভিলিয়ার্সের এমন বক্তব্যের পর ক্রিকেটপ্রেমীরা ধরেই নিয়েছিল, ভারতে অক্টোবরে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সিতের ফের দেখা যাবে এই মারকুটে ব্যাটসম্যানকে।
 
কিন্তু সে আশা ভেঙে খান খান হয়ে গেল ভিলিয়ার্সভক্তদের।

প্রসঙ্গত, ফর্মের তুঙ্গে থাকা অবস্থায় হুট করে ২০১৮ সালের মে মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার মারকুটে ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স।

যা শুধু তার ভক্তদের নয়; গোটা ক্রিকেটবিশ্বকেই অবাক করে দেয় ভিলিয়ার্সের সেই সিদ্ধান্ত।  ডি ভিলিয়ার্সের অবসর কেউ মেনে নিতে পারছিলেন না সে সময়।

তথ্যসূত্র: ইএসপিএন ক্রিক ইনফে

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড