শাহজালালে ২৮ সোনার বারসহ যাত্রী আটক
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
শাহজালালে ২৮ সোনার বারসহ যাত্রী আটক
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০২:০২ অপরাহ্ন

শাহজালালে ২৮ সোনার বারসহ যাত্রী আটক

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১২ মে, ২০২১
  • ১২৪ জন পড়েছেন

রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৩ কেজি ২৫০ গ্রাম ওজনের ২৮ টি সোনার বারসহ এক যাত্রীকে আটক করেছে ঢাকা কাস্টম হাউসের প্রিভেন্টিভ টিম। উদ্ধার হওয়া সোনার মূল্য ২ কোটি ১৫ লাখ টাকা।

আটক যাত্রীর নাম রবিন মাতবর। তিনি সেৌদি থেকে মঙ্গলবার দেশে ফেরেন।

মঙ্গলবার সৌদি আরব থেকে আসা ওই যাত্রীর ব্যাগের ডোর ক্লোজারের ভেতর থেকে ৩ কেজি ২৫০ গ্রাম ওজনের ২৮ টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়।

ঢাকা কাস্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার (প্রিভেন্টিভ টিম) মোহাম্মদ আব্দুস সাদেক বিষয়টি   নিশ্চিত করে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে চোরাচালান প্রতিরোধে কাস্টম হাউস ঢাকার প্রিভেন্টিভ টিমের সদস্যরা বিমানবন্দরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে নজরদারি করতে থাকেন।

পরে মঙ্গলবার বিকেল ৩ টা ৪৭ মিনিটে সৌদি আরব থেকে আসা ফ্লাইটে আসা যাত্রী রবিন মাতবর বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম কালে তাকে আটক করা হয়। 

তার সঙ্গে থাকা ব্যাগ স্ক্যান করলে স্বর্ণের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। ডোর ক্লোজার ভেঙে এর ভেতর হতে প্রায় ৩ কেজি ২৫০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, রবিন মাতবের গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ। তাকে থানায় সোপর্দ করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড