বিহার-উত্তরপ্রদেশের পর মধ্যপ্রদেশেও ভেসে আসছে লাশ
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : আল-আসিফ ইলাহী রিফাত : আল-আসিফ ইলাহী রিফাত
  8. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  9. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  12. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
বিহার-উত্তরপ্রদেশের পর মধ্যপ্রদেশেও ভেসে আসছে লাশ
শনিবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩৮ অপরাহ্ন

বিহার-উত্তরপ্রদেশের পর মধ্যপ্রদেশেও ভেসে আসছে লাশ

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১২ মে, ২০২১
  • ১৪২ জন পড়েছেন

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে লণ্ডভণ্ড ভারতে একের পর এক করুণ ছবি উঠে আসছে। বিহার ও উত্তরপ্রদেশের পর এবার মধ্যপ্রদেশেও নদী থেকে মৃতদেহ উদ্ধারের খবর পাওয়া গেছে। 

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, মধ্যপ্রদেশের পান্না জেলার রুঞ্জ নদীতে কমপক্ষে ৬টি মৃতদেহ ভেসে আসতে দেখা গেছে। সেখানে পচাগলা দেহ জমা হচ্ছে নদীর পাড়ে।

স্থানীয়দের দাবি, ভেসে আসা এসব মরদেহ করোনা আক্রান্তদের দেহ। শ্মশানে পোড়ানোর স্থান না হওয়ায় নদীতে মৃতদেহ ভাসিয়ে দিচ্ছেন অনেকে। সেগুলোই ভেসে আসছে বলে মনে করছেন তারা।

এই ঘটনার কয়েকটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে নান্দাপুরা গ্রামের বাসিন্দারা দেখাচ্ছেন যে রুঞ্জ নদীতে মৃতদেহ ভাসছে। 

গ্রামের এক বাসিন্দা বলেন, গ্রামের পাম্প কোনো কারণে না চললে আমরা এই নদীতে গোসল করি, নদীর পানিও খাই। গবাদি পশুরাও নদীর পানি পান করে। আমরা গ্রাম পঞ্চায়েতকে জানিয়েছি। কিন্তু কিছুই করা হয়নি।

পান্নার জেলা প্রশাসক সঞ্জয় মিশ্র বলেছেন, স্থানীয়রাই বিশেষ এক প্রথার কারণে দু’টি মৃতদেহ নদীতে ভাসিয়ে দিয়েছেন। একটি দেহ ৯৫ বছরের এক ব্যক্তির। অন্যটি ক্যানসারে আক্রান্ত এক রোগীর। এই মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে ঠিকভাবে সৎকার করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে ভারতের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, প্রত্যন্ত এলাকায় করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের কীভাবে সৎকার করতে হয়, তা তাদের জানা নেই। তাই মরদেহ থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে, এমন আশঙ্কায়  মরদেহগুলো নদীতে ভাসিয়ে দিচ্ছেন তারা।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড