দলত্যাগীদের স্বাগত জানিয়েছেন মমতা, শুভেন্দু কী ফিরছেন?
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
দলত্যাগীদের স্বাগত জানিয়েছেন মমতা, শুভেন্দু কী ফিরছেন?
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ১২:৫৫ অপরাহ্ন

দলত্যাগীদের স্বাগত জানিয়েছেন মমতা, শুভেন্দু কী ফিরছেন?

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৩ মে, ২০২১
  • ৫২ জন পড়েছেন

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার হিড়িক পড়েছিল। তবে ভোটের ফলাফলে অধিকাংশ নেতাকেই শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে। তবে দলত্যাগীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকজনের মধ্যে শুভেন্দু অধিকারী নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন। তাও আবার নন্দীগ্রামে মমতার সঙ্গে ভোটে লড়াই করে। 

বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল সাফল্য পাওয়ার পরও দলত্যাগীদের প্রতি উদারতা দেখালেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফিরতে চাইলে সবাকেই দলে স্বাগত জানাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

রোববার ভোটের ফলাফল গণনা শুরু হয়। এতে তৃণমূলের ধারেকাছে নেই বিজেপি। 

পশ্চিমবঙ্গে প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যম আনন্দাবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন যেসব হেভিওয়েট নেতারা, তাদের মধ্যে শুভেন্দু অধিকারী, হিরণ চট্টোপাধ্যায় এবং নিশীথ প্রামাণিককে বাদ দিলে কেউই জয়ী হতে পারেননি। বিরাট ব্যবধানে হেরেছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, সব্যসাচী দত্ত, বৈশালী ডালমিয়ারা।

ভোটে বিজেপির পরাজয়ের পর তাই তাদের তৃণমূলে ফিরে আসা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। সোমবার সকালে কালীঘাটে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মমতা, সেখানে দলত্যাগীদের প্রত্যাবর্তনের সম্ভাবনা নিয়ে প্রশ্ন করলে মমতা বলেন, আসুক না। কে বারণ করেছে! এলে স্বাগত।

ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর এখনো ২৪ ঘণ্টা কাটেনি। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া কেউ এখনো প্রকাশ্যে জোড়াফুলে ফিরে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেননি। তবে সেই সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়েও দেওয়া যাচ্ছে না। তবে এ নিয়ে প্রশ্ন করলে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, তৃণমূল ছেড়ে যাঁরা এসেছিলেন, তারা অত্যাচারিত এবং অপমানিত হয়ে এসেছিলেন। মনে হয় না তাদের কেউ ফিরে যাবেন।

তবে রাজনৈতিক মহলের একটি অংশের মতে, নির্বাচনী প্রচারে যাদের লাগাতার ‘বিশ্বাসঘাতক’, ‘গাদ্দার’ এবং ‘আপদ’ বলে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল নেত্রী, তাদের আদৌ স্বাগত জানাবেন কিনা সন্দেহ রয়েছে। বিশেষ করে একা এতবড় জয়লাভের পর। নেহাত সৌজন্যবশতই তিনি ওই কথা বলে থাকতে পারেন বলেও মনে করছেন অনেকে।

রোববার রাজ্যের বিধানসভার ভোটের ফলাফল গণনা শুরু হয়। এতে ২১৩ আসনে জয়ী হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। ভারতের নির্বাচন কমিশন সোমবার সকালে সর্বশেষ এতথ্য দিয়েছে। 

নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) জয়ী হয়েছে ৭৭ আসনে। কংগ্রেস-বাম দল ও আইএসএফের গড়া সংযুক্ত মোর্চা পেয়েছে মাত্র একটি আসন। আরেকটি আসন পেয়েছে অন্যরা। এ রাজ্যে ২০১১ ও ২০১৬ সালেও জয় পেয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

টুইটারে আমরা

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড