ভোটে পিছিয়ে শ্রাবন্তী-রুদ্রনীল-সায়নী, এগিয়ে সোহম-সায়ন্তিকা-রাজ
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
ভোটে পিছিয়ে শ্রাবন্তী-রুদ্রনীল-সায়নী, এগিয়ে সোহম-সায়ন্তিকা-রাজ
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০১:১৮ অপরাহ্ন

ভোটে পিছিয়ে শ্রাবন্তী-রুদ্রনীল-সায়নী, এগিয়ে সোহম-সায়ন্তিকা-রাজ

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২ মে, ২০২১
  • ৭০ জন পড়েছেন

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে ভোটগণনা চলছে। এতে তৃণমূল কংগ্রেসের আবারও সরকার গঠনের আভাস পাওয়া গেছে।

টালিউডের দুই আলোচিত প্রার্থী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ও রুদ্রনীল ঘোষ ভোটে পিছিয়ে পড়েছেন। এ দুজনই বিজেপি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। প্রাথমিক ফলাফলের বরাত দিয়ে এনডিটিভি ও আনন্দবাজারের খবরে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

স্থানীয় সময় দুপুর সাড়ে ১২ টায জানা যায়, বিজেপির তিন প্রার্থী শ্রাবন্তী, রুদ্রনীল ও লকেট প্রতিদ্বন্দ্বীদের থেকে পিছিয়ে পড়েছেন।

নির্বাচনের কিছুদিন আগে প্রথমবারের মতো রাজনীতিতে সরব হন শ্রাবন্তী। পশ্চিম বেহালা থেকে লড়ছেন তিনি। নির্দেশ অমান্য করে প্রচারণা চালিয়ে মামলার মুখোমুখিও রয়েছেন এ অভিনেত্রী। তারপরও দমে যাননি তিনি। কিন্তু ভোট গণনার দিন তার জন্য হতাশার খবর দিল সংবাদমাধ্যমগুলো।

অন্যদিকে বিজেপিতে যোগ দিয়ে সতীর্থদের সমালোচনার মুখে পড়েন রুদ্রনীল ঘোষ। এর আগে তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। দল পাল্টেই গরম সুরে কথা বলা শুরু করেন। যা নিয়ে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়। ভবানীপুরের এই প্রার্থীর অবস্থাও ভালো নয়।

লকেট আগে থেকে বিজেপি করে আসলেও এবারের নির্বাচনে পিছিয়ে পড়েছেন।

ভোটের লড়াইয়ে আরও এগিয়ে আছেন তৃণমূল প্রার্থী গায়িকা অদিতি মুন্সি, পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, অভিনেতা চিরঞ্জীৎ চক্রবর্তী, জুন মালিয়া, সায়নী ঘোষ ও কাঞ্চন মল্লিক। 

পিছিয়ে পড়েছেন বিজেপি থেকে কয়েকবার নির্বাচিত গায়ক বাবুল সুপ্রিয়। তবে এগিয়ে আছেন দলবদল করে বিজেপিতে আসা হিরণ চট্টোপাধ্যায়।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক তারকাপ্রার্থীদের অবস্থান। 

এনডিটিভির খবরে জানা যায়, আসানসোল দক্ষিণ থেকে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সায়নী ঘোষ পিছিয়ে আছেন। চুঁচুঁরা থেকে বিজেপির প্রার্থী লকেট পিছিয়ে আছেন।

বেহালা পূর্বতে এগিয়ে আছেন পায়েল সরকার। তিনি বিজেপির প্রার্থী। কলকাতা থেকে এগিয়ে আছেন তৃণমূল প্রার্থী ফিরহাদ হাকিম।

কামারহাটিতে এগিয়ে রয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। অন্যদিকে কৃষ্ণনগর উত্তরে এগিয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি মুকুল রায়। পিছিয়ে রয়েছেন তৃণমূলের কৌশানি মুখোপাধ্যায়।

উত্তরপাড়ায় এগিয়ে রয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী কাঞ্চন মল্লিক। মেদিনীপুরে জুন মালিয়া এগিয়ে।

ব্যারাকপুর থেকে রাজ চক্রবর্তী এগিয়ে আছেন। অভিনেত্রী শুভশ্রীর স্বামী এই পরিচালক তৃণমূল থেকে লড়ছেন। বাকুরা থেকে অভিনেত্রী সায়ন্তিকা এগিয়ে আছেন। তিনি তৃণমূল কংগ্রেস থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

টালিগঞ্জে এগিয়ে আছেন আর এক মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। পিছিয়ে আছেন বিজেপির এমপি বাবুল সুপ্রিয়।  চণ্ডীতলা থেকে বিজেপির প্রার্থী যশ পিছিয়ে রয়েছেন। শিবপুরে তৃণমূল প্রার্থী মনোজ তিওয়ারি এগিয়ে আছেন।

ভবানীপুর থেকে পিছিয়ে আছেন জনপ্র্রিয় অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। তিনি বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বেহালা পশ্চিমে পিছিয়ে আছেন বিজেপির শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। চণ্ডীপুরে এগিয়ে তৃণমূল প্রার্থী সোহম।

কৃষ্ণনগর উত্তরে পিছিয়ে আছেন তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কৌশানি মুখার্জি। 

নন্দীগ্রামে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা এখন পর্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর চেয়ে পিছিয়ে আছেন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

টুইটারে আমরা

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড