‘পশ্চিমবঙ্গ দখল করতে গিয়ে সর্বনাশা পথে বিজেপি’
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
‘পশ্চিমবঙ্গ দখল করতে গিয়ে সর্বনাশা পথে বিজেপি’
রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০২:৩৯ অপরাহ্ন

‘পশ্চিমবঙ্গ দখল করতে গিয়ে সর্বনাশা পথে বিজেপি’

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২১
  • ৬৬ জন পড়েছেন

পশ্চিমবঙ্গ দখল করতে গিয়ে বিজেপি একটা সর্বনাশা পথে নিয়ে গিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রমণের জন্য বিজেপির বহিরাগত নেতাকর্মীদের দায়ী করেন তিনি।

করোনা সংক্রমণ নিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ভয় পাওয়ার কারণ নেই।  বাংলা দখল করতে গিয়ে একটা সর্বনাশা পথে নিয়ে গিয়েছে বিজেপি। প্রধানমন্ত্রীর মন কা বাত কেউ শুনবে না, কোভিডের বাত বলুন।  পশ্চিমবঙ্গে অক্সিজেন সরবরাহকারীদের পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে উত্তরপ্রদেশে।’

রোববার সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।  খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

দেশের কোভিড পরিস্থিতির ভয়াবহতা নিয়ে সরাসরি বিজেপিকে দায়ী করে মমতা বলেন, ‘ভ্যাকসিন ৮০টা দেশে পাঠিয়ে গিয়েছে। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় টাকার হোসপাইপ চলছে। কমিশন দেখতে পায় না। ২ লক্ষ পুলিশ রেখে দিয়েছে। উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান থেকে এসেছে। কে কোভিড ওরাও জানে না। প্রচুর বিজেপি কর্মীও বাইরে থেকে এসেছে। কোভিডের সময় বাইরে থেকে ৪-৫ লাখ বাংলায় পড়ে থাকলে দায়ী কে? ওরা পরিকল্পনা করেছে যাতে বাংলা কোভিডে পড়ে আর ওরা ড্যাং ড্যার করে বেরিয়ে যায়। সেন্ট্রাল ফোর্সের লোকজন বাড়িতে গেলে বলবেন দূর থেকে কথা বল। মা বোনেরা বলবেন। আউটসাইডার অ্যালাও নয়।’

নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করে মমতা আরও বলেন, ‘হোয়াটস অ্যাপ চ্যাট আমার কাছে এসেছে।  কমিশন সিপিএফ পাঠিয়ে বিজেপিতে মদত দিচ্ছে।  ক্রিমিনালদের পাহারা দেওয়ার জন্য সেন্ট্রাল ফোর্স দেওয়া হচ্ছে।  আমাদের পুলিশ বেচারা ইলেকশন এলেই ভয়ে চুপচাপ থাকে। যেন ঘুঘুর বাসায় পড়েছে। নিজেদের যে ব্রেইনটা ইউজ করতে পারে না। তারা ভাবে ইলেকশন কমিশন যেটা একদিনের জন্য বলছে সেটা শুনতে বাধ্য। কিন্তু বাকি যে ৫ বছর আছে সেটা জানে না।
ইলেকশন কমিশন বিজেপির আয়না উল্লেখ করে তৃণমূল নেত্রী মমতা বলেন, প্রত্যেকে বেরোবেন, ইলেকশনে ভোট করাবেন। তৃণমূলই ক্ষমতায় থাকবে।  মামলা করলে আমরা দেখে নেব। আইনজীবীদের সঙ্গে কথা হয়েছে। যেভাবে পক্ষপাতমূলক ভোট হয়েছে তাতে আমরা সুপ্রিম কোর্টে যাব।  

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বাধিক জনপ্রিয়

টুইটারে আমরা

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড