1. khulna@nongor.news : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  2. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  5. rabbi@nongor.news : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  7. sakia@nongor.news : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  8. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  9. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
খুলনার আলোচিত চিত্তরঞ্জন বাইন হত্যা মামলায় দুইজনের ফাঁসি'র রায়
বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ১০:০৮ পূর্বাহ্ন

খুলনার আলোচিত চিত্তরঞ্জন বাইন হত্যা মামলায় দুইজনের ফাঁসি’র রায়

মোঃজিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ, ২০২১
  • ৯৪ জন পড়েছেন

খুলনায় বহুল আলোচিত প্রভাষক চিত্তরঞ্জন বাইন হত্যা মামলায় দুইজনকে ফাঁসি’র রায় দিয়েছেন আদালত। 
আজ বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দুপুরে খুলনা জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রইব্যুনালের বিচারক সাইফুজ্জামান হিরো এ রায় ঘোষণা করেন।


চিত্তরঞ্জন বাইন শহীদ শেখ আবুল কাশেম স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক ছিলেন।
ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- রাজুু মুন্সি ওরফে গাল কাটা রাজু ও তুহিন গাজী। এর মধ্যে রাজু মুন্সি ওরফে গাল কাটা রাজু পলাতক রয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আরিফ মাহমুদ লিটন। 


তিনি বলেন, আদালত মামলার ১০ জন আসামির মধ্যে দুইজনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন। আর বাকীদের খালাস দিয়েছেন। এই রায়ে রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট বলে তিনি জানিয়েছেন। 


আদালত সূত্রে জানা গেছে, প্রভাষক চিত্তরঞ্জন বাইন পরিবারসহ শেরে বাংলা আমতলা রোডের একটি বাড়িতে বসবাস করতেন। ২০১৭ সালের ৬ জানুয়ারি তার স্ত্রী দুই মেয়েকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যান। প্রতিদিনের মতো ১৪ জানুয়ারি পিটিআই মোড়স্থ নিজ কর্মস্থল থেকে রাত সাড়ে ১০টায় বাসায় ফিরে আসেন তিনি। 


ওইদিন রাত থেকে ১৫ জানুয়ারি বেলা সোয়া ১১টার মধ্যে যে কোনো সময় দুর্বৃত্তরা ডাকাতির উদ্দেশ্যে তার বাসার জানালার গ্রিল কেটে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে। তাকে হত্যা করে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ দুই লাখ টাকার মালামাল লুট করে পালিয়ে যায়। 


ওই ঘটনার পরের দিন নিহতের ছোটভাই অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা দায়ের করেন। তদন্তে নেমে পুলিশ আসামিদের খোঁজ পান। একই বছরের ১২ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা খুলনা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. কামাল উদ্দিন ১০ জন আসামির নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড