1. khulna@nongor.news : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  2. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  5. rabbi@nongor.news : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  7. sakia@nongor.news : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  8. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  9. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
যশোরে পাষণ্ড জামাই'র ছুরিকাঘাতে শ্বশুর গুরুতর জখম
শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০১:৩৮ অপরাহ্ন

যশোরে পাষণ্ড জামাই’র ছুরিকাঘাতে শ্বশুর গুরুতর জখম

মোঃজিলহজ্জ হাওলাদার,খুলনা
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১
  • ৯০ জন পড়েছেন

যশোরে ইমন নামে এক পাষণ্ড জামাই তার শ্বশুর মোহম্মদ জুয়েল হোসেনকে ছুরি মেরে গুরুতর জখম করেছে।

বুধবার(৩রা মার্চ) বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে যশোর শহরের খড়কি গাজির দরগার মোড়ে এ ঘটনাটি ঘটেছে। আহত জুয়েল ওই এলাকার মুজিবর রহমানের ছেলে। তিনি চায়ের দোকানদার। তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে আমাদের প্রতিনিধিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জুয়েল জানান, আমি দোকানে চা বিক্রি করছিলাম। ওই সময় আমার মেয়ের জামাই ইমন তার দুই সহযোগীকে নিয়ে সেখানে আসে। এসময় কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা আমার পেটে ছুরি ঢুকিয়ে দেয়। চিৎকার শুনে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

জুয়েল বলেন, জামাই ইমন একজন সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও মাদক ব্যবসায়ি। এ নিয়ে তার সাথে আমার বিরোধ চলছিল। একপর্যায়ে সে আজ আমাকে ছুরি মেরেছে।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার আহম্মেদ তারেক সামস বলেন, ছুরিকাঘাতে জুয়েলের অনেকটা ক্ষত হয়েছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তির পর অপারেশন করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা পার না হওয়া পর্যন্ত তার অবস্থা সম্পর্কে কিছুই বলা যাবে না।

কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম বলেন, জামাই শ্বশুরকে ছুরি মেরেছে শুনেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

টুইটারে আমরা

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড