মোবাইল চুরির অপবাদে যুবককে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে রাখে লাশ
  1. [email protected] : জাহিদ হাসান দিপু : জাহিদ হাসান দিপু
  2. [email protected] : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা : মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার, খুলনা
  3. [email protected] : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  6. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  7. [email protected] : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  8. [email protected] : দৈনিক নোঙর ডেস্ক : দৈনিক নোঙর ডেস্ক
  9. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  10. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  11. [email protected] : Sobuj Ali : Sobuj Ali
মোবাইল চুরির অপবাদে যুবককে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে রাখে লাশ
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন

মোবাইল চুরির অপবাদে যুবককে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে রাখে লাশ

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৪০ জন পড়েছেন

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় মোবাইল ফোন চুরির অপবাদে বিল্লাল হোসেন (২৪) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার মধ্যরাতে আমিরাবাড়ী ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মোবাইল চুরির অপবাদে যুবককে হত্যার পর তার মরদেহ গাছে ঝুলানো হয় বলে জানান স্বজনরা।

নিহত বিল্লাল হোসেন উপজেলার আমিরাবাড়ী ইউনিয়নের আবুল কাশেমের ছেলে। তিনি পেশায় দিনমজুর ছিলেন।

স্থানীয়দের জানা যায়, উপজেলার আমিরাবাড়ী ইউনিয়নের কাশিগঞ্জ বাজারে ধর্মীয় মাহফিল শুনতে যায় বিল্লাল হোসেন।
মাহফিল থেকে ফেরার পথে পূর্ব শত্রুতার জের তাকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

মৃত বিল্লাল হোসেনের চাচাতো ভাই মাতাব উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি ভাইকে কে বা কারা হত্যা করে গাছের সঙ্গে মরদেহ রশি দিয়ে বেঁধে রেখেছে।

নিহত বিল্লাল হোসেনের বাবা আবুল কাশেম জানান, পনের দিন আগে আব্দুল কাদের মুন্সির ছেলে রোমানের মোবাইল ফোন চুরি হয়।সে আমার ছেলেকে সন্দেহ করে। ওই শত্রুতার জের ধরে রোমান, ফরিদ, সাদিকুল, নাজমূল তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমি ছেলে হত্যার বিচার চাই।

মৃত বিল্লাল হোসেনের বোন হাসিনা আক্তার বলেন, আমার ভাই সহজ সরল কারো সঙ্গে কোনো দিন ঝগড়া করে নাই। তাকে মোবাইল চুরির ঘটনায় পরিকল্পিতভাবে একই এলাকার রোমান, ফরিদ, সাদিকুল, নাজমূল মিলে হত্যা করেছে।

ত্রিশাল থানা ওসি জানান, মৃত বিল্লাল হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় চুরি, মাদক, নারী নির্যাতনের মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।

সূত্রঃ যুগান্তর

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড