বরগুনায় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু
  1. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  2. niloy@nongor.news : Creative Niloy : Creative Niloy
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  6. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  7. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
বরগুনায় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু
বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১২:৫০ পূর্বাহ্ন

বরগুনায় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৭২ জন পড়েছেন

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় মাগরিবের নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় আবুল হোসেন হাওলাদার (৫৮) নামের এক ইমামের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) উপজেলা সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ গহরপুর গ্রামের মেহের উদ্দিন মোল্লা বাড়ি জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

আবুল হোসেন হাওলাদার ওই গ্রামের দেনছের আলী হাওলাদারের ছেলে। ২০ বছর ধরে মেহের উদ্দিন মোল্লা বাড়ি জামে মসজিদে বিনা পারিশ্রমিকে মুয়াজ্জিন ও ইমামতি করে আসছিলেন আবুল হোসেন।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় জানাজা শেষে আবুল হোসেন হাওলাদারকে পারিবারিক কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয়েছে। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

মেহের উদ্দিন মোল্লা বাড়ি জামে মসজিদের মুসল্লি আব্দুল হামিদ খান বলেন, মাগরিবের আজান দিয়ে নামাজের ইমামতি শুরু করেন আবুল হোসেন। এক রাকাত নামাজ শেষে দ্বিতীয় রাকাতে শ্বাসকষ্ট অনুভব করেন তিনি। ওই অবস্থায় নামাজ আদায় করে যাচ্ছিলেন। দ্বিতীয় রাকাতে সিজদায় গিয়ে উঠতে পারেননি তিনি। পরে মুনাফ নামের এক ব্যক্তির ইমামতিতে বাকি নামাজ শেষ হয়। নামাজ শেষে আবুল হোসেনকে মৃত অবস্থায় সিজদায় পাই আমরা।

আবুল হোসেনের ছোট ভাই নূর হোসেন হাওলাদার বলেন, দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন ভাই। গত শুক্রবার ঢাকা থেকে ডাক্তার দেখিয়ে বাড়িতে আসেন তিনি। শনিবার মাগরিবের আজান দিয়ে নামাজের ইমামতির সময় তার মৃত্যু হয়। রোববার সকালে জানাজা শেষে বাবার কবরের পাশে ভাইকে দাফন করা হয়েছে।

সূত্রঃ ঢাকা পোস্ট

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড