৩ মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর ধ‌রে আমেরিকায় শি‌ক্ষিকা
  1. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  2. niloy@nongor.news : Creative Niloy : Creative Niloy
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  6. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  7. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
৩ মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর ধ‌রে আমেরিকায় শি‌ক্ষিকা
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৫:৩৩ অপরাহ্ন

৩ মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর ধ‌রে আমেরিকায় শি‌ক্ষিকা

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৬১ জন পড়েছেন

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে এক সহকারী শিক্ষক তিন মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর ধরে আমেরিকায় আছেন বলে জানা গেছে। তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পেরে কোনো পদক্ষেপ নিতে পারছে না স্থানীয় শিক্ষা অফিস।

ওই শিক্ষিকার নাম তানিয়া রহমান। তিনি উপজেলা সদরের বাওয়ার কুমারজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা।

উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, বাওয়ার কুমারজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা তানিয়া রহমান ৩ জুলাই ২০১৯ থেকে ২ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত ব্যক্তিগত সমস্যা দেখিয়ে স্কুল থেকে ছুটি নেন। ছুটি নিয়ে তিনি সপরিবারে আমেরিকায় চলে যান। তারপর থেকে স্কুলের সঙ্গে তানিয়া রহমানের কোনো যোগাযোগ নেই।উপজেলা শিক্ষা অফিস থেকে তাকে একাধিকবার এ ব্যাপারে কৈফিয়ত চেয়ে চিঠি পাঠালেও কেউ তা গ্রহণ করেননি।

বাওয়ার কুমারজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তানিয়া রহমানের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, করোনার কারণে আমি দেশে আসতে পারছি না।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আলমগীর হোসেন ঢাকা পোস্ট‌কে বলেন, সহকারী শিক্ষক তানিয়া রহমান তিন মাসের ছুটি নিয়ে আমেরিকা চলে গে‌লেও আর আ‌সেন‌নি। উপ‌জেলা ও জেলা শিক্ষা অ‌ফিস থে‌কে একাধিকবার চিঠি দিয়েও তার কোনো যুক্তিযুক্ত জবাব পাওয়া যায়নি। ত‌বে তি‌নি এক‌টি মাধ‌্যমে জা‌নি‌য়ে‌ছেন, ক‌রোনার কার‌ণে দে‌শে আস‌তে পা‌রছেন না তিনি। সর্বশেষ বিভাগীয় ব‌্যবস্থা গ্রহ‌ণের উ‌দ্যোগ নেওয়া হ‌য়ে‌ছে। এ‌তে তি‌নি য‌দি স‌ন্তোষজনক জবাব না দেন তাহ‌লে তা‌কে শি‌ক্ষিকার পদ থে‌কে ব‌হিষ্কার করা হ‌বে। 

তি‌নি আ‌রও ব‌লেন, ‌তি‌নি ছু‌টি‌তে যাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কোনো বেতন উ‌ত্তোলন ক‌রেন‌নি। 

জেলা প্রাথ‌মিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবদুল আ‌জিজ ঢাকা পোস্টকে ব‌লেন, ওই শি‌ক্ষিকা চি‌কিৎসাজ‌নিত ছু‌টি নি‌য়ে‌ছেন। এরপর থে‌কে তার বেতন উ‌ত্তোলন বন্ধ র‌য়ে‌ছে। আগামী ২০ থে‌কে ২২ দি‌নের ম‌ধ্যে তা‌কে চাক‌রি থে‌কে ব‌হিষ্কার করা হ‌বে। 

সূত্রঃ যুগান্তর

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড