কেসিসি-কেডিএ’র যৌথ সভায় অনুষ্ঠিত
  1. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  2. niloy@nongor.news : Creative Niloy : Creative Niloy
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  6. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  7. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
কেসিসি-কেডিএ’র যৌথ সভায় অনুষ্ঠিত
মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৫:০৬ পূর্বাহ্ন

কেসিসি-কেডিএ’র যৌথ সভায় অনুষ্ঠিত

মোঃ জিলহজ্জ হাওলাদার,খুলনা
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৬১ জন পড়েছেন

মহানগরীর উন্নয়ন কার্যক্রম তরান্বিত ও সমন্বয়করণে খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) ও খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কেডিএ) এর যৌথ মতবিনিময় সভা আজ বুধবার কেডিএ’র সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। 


সভায় সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এবং কেডিএ’র চেয়ার‌্যম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাহবুবুল ইসলামসহ পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ অংশ নেন।
সভায় কেসিসি’র পক্ষে সিটি মেয়র মহানগরীর সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে উভয় সংস্থার সমন্বিতভাবে কাজ করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, কেডিএ কর্তৃক বস্তবায়িত আবাসিক এলাকাসমূহে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে সেকেন্ডারী ট্রান্সফার স্টেশন (এসটিএস), চিত্ত বিনোদনের জন্য পাবলিক পরিসর, সামাজিক অনুষ্ঠানাদি আয়োজনের জন্য কমিউনিটি সেন্টার ইত্যাদি’র ব্যবস্থা না রাখায় জনসেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। তিনি সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য আবাসিক এলাকার মধ্যে এসটিএস নির্মাণের লক্ষ্যে জায়গা বরাদ্দের জন্য কেডিএ কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান। 


সিটি মেয়র আরও বলেন, দেশের সকল সিটি কর্পোরেশন এলাকায় উন্নয়ন সংস্থা কর্তৃক বাস্তবায়িত প্রকল্পসমূহ পরবর্তীতে সিটি কর্পোরেশনের নিকট হস্তান্তর করা হলেও খুলনায় এর ব্যর্তয় ঘটেছে। কেডিএ কর্তৃক নির্মিত বাস টার্মিনাল ও নিউ মার্কেটসহ অন্যান্য মার্কেটসমূহ আজও হস্তান্তর করা হয়নি। অথচ কেডিএ কর্তৃক নির্মিত নিম্নমানের সড়কসমূহ কেসিসি’র অনুকূলে হস্তান্তরের প্রস্তাব দেয়া হচ্ছে। শুধুমাত্র লাভজনক প্রকল্পগুলি কেডিএ ভোগ করবে এবং অলাভজনক বা ব্যয়ের খাতগুলি কেসিসি’র ওপর চাপানো হবে, এটি কোনভাবেই কাম্য নয়। 


সিটি মেয়র জোর দিয়ে বলেন, সড়কগুলি মানসম্পন্নভাবে নির্মিত না হলে তা কেসিসিভুক্ত করা হবে না। কেডিএ’কে বাণিজ্যিক সংস্থা হিসেবে পরিচালনা না করে যে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে কেডিএ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে কাজ করার জন্য তিনি কেডিএ কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানান। তবেই খুলনার উন্নয়ন ও অগ্রগতি ত্বরান্বিত হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। 


সভায় কেডিএ’র পক্ষে চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাহবুবুল ইসলাম বলেন, খুলনার উন্নয়নই উভয় সংস্থার মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। সে কারণে উভয় সংস্থার যৌথভাবে কাজ করা প্রয়োজন।


তিনি মহানগরীর সামগ্রিক উন্নয়নের স্বার্থে বিদ্যমান অমীমাংসিত বিষয়গুলি আলোচনা ও সমঝোতার মাধ্যমে সমাধান করা হবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। 
কেসিসি’র সচিব মোঃ আজমুল হক, প্রধান প্রকৌশলী মোঃ এজাজ মোর্শেদ চৌধুরী, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ার হোসেন, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা প্রকৌশলী মো: আব্দুল আজিজ, নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ লিয়াকত আলী খান, প্রধান পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবির উল জব্বার, সম্পত্তি কর্মকর্তা নুরুজ্জামান তালুকদার, কেডিএ’র চীফ ইঞ্জিনিয়ার কাজী মোঃ সাবিরুল আলম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শামীম জেহাদ, পরিচালক (প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা) ড. মোঃ শাহানুর আলম, পরিচালক (এস্টেট) মোঃ ছাদিকুর রহমান, পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোঃ তানভীর আহমেদ ও অথরাইজড অফিসার মোঃ মুজিবুর রহমান সভায় উপস্থিত ছিলেন। 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড