স্ত্রীর পেছনে হামাগুড়ি দিচ্ছেন শেকলে বাঁধা স্বামী, কেন?
  1. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  2. niloy@nongor.news : Creative Niloy : Creative Niloy
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  6. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  7. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
স্ত্রীর পেছনে হামাগুড়ি দিচ্ছেন শেকলে বাঁধা স্বামী, কেন?
সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৩:৫৭ অপরাহ্ন

স্ত্রীর পেছনে হামাগুড়ি দিচ্ছেন শেকলে বাঁধা স্বামী, কেন?

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৯৬ জন পড়েছেন

লকডাউনের মধ্যেই নিজের বাসার বাইরে বেরিয়ে অদ্ভূত এক কাজ করে জরিমানা গুনলেন দম্পতি। কানাডার কুইবেকের কিং স্ট্রিটের এক ২৪ বছর বয়সী নারী তার ৪০ বছর বয়সী স্বামীকে গলায় শেকল দিয়ে বেঁধে রাস্তায় ঘুরিয়েছেন। 

নেটদুনিয়াতেও রীতিমতো ভাইরাল এই ছবি। তবে এই কাণ্ড করে রেহাই পাননি তিনি। কেন স্বামীকে এভাবে ঘোরাচ্ছেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমি আমার স্বামীকে না, আমার কুকুরকে হাঁটাতে বের হয়েছি। উল্লেখ্য রাত ৮টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কুইবেক প্রশাসন কারফিউ জারি করেছে। তবে সীমিত পরিসরে মানুষ কুকুর নিয়ে হাঁটতে বের হতে পারবে।

ওই নারী এবং তার স্বামীকে ৩ হাজার ডলার জরিমানাও দিতে হয়েছে।জানা গেছে,  যেখানে নতুন করে করোনা সংক্রমণ চিন্তা বাড়িয়েছে স্থানীয় প্রশাসনের। ফলে রাত ৮টার পর সেখানে জারি থাকছে কারফিউ। অভিযুক্ত নারী বাইরে বেরোনোর জন্য ফন্দি আঁটছিলেন। আর তাতেই এমন কাণ্ড! স্বামীর সঙ্গে বাইরে বেরোনোর জন্য তাকেই কুকুরের শেকল পরিয়ে দুজনে রাস্তায় ঘুরতে বের হন। এমনটি দেখে এক পুলিশ কর্মকর্তা ওই নারীকে আটক করায় সব ফাঁস হয়ে যায়। 

এই ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা লা ট্রিবিউন পত্রিকাকে জানান, এই দম্পতি কোনোভাবেই পুলিশকে সাহায্য করেননি। 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড