ভারতের পানির সঙ্কট মেটাতে জার্মান ফুটবলারের অভিনব উদ্যোগ
  1. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  2. niloy@nongor.news : Creative Niloy : Creative Niloy
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  6. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  7. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
ভারতের পানির সঙ্কট মেটাতে জার্মান ফুটবলারের অভিনব উদ্যোগ
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন

ভারতের পানির সঙ্কট মেটাতে জার্মান ফুটবলারের অভিনব উদ্যোগ

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬৬ জন পড়েছেন

ভারতে চলমান সুপার লিগ আইএসএলে এসসি ইস্টবেঙ্গল দলের হয়ে খেলছেন জার্মান ফুটবলার মাত্তি স্টেইনম্যান। 

খেলার ফাঁকেই ভারতে বিশুদ্ধ পানির অভাবের বিষয়টি নিয়ে ভাবনায় পড়েছেন তিনি।

সমস্যার সমাধানে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছেন এই ফুটবলার। 

‘মাত্তি রানস ফর ওয়াটার’ নামের একটি কর্মসূচিও চালু করেছেন তিনি। যার স্পন্সর হয়েছে হামবুর্গের ‘ভাইভা কন অ্যাগুয়া’ নামের একটি এনজিও।  এই এনজিওর সহায়তায় ভারতে বিশুদ্ধ পানির অভাব মেটাতে অর্থ সহায়তা দেবেন মাত্তি।

মাত্তি স্টেইনম্যান জানিয়েছেন, ম্যাচ চলাকালে প্রতি কিলোমিটার দৌড়নোর জন্য ১০ ডলার করে দান করবেন। 

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বৃষ্টির পানি থেকে খাবার পানি তৈরির একাধিক প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত ‘ভাইভা কন অ্যাগুয়া’ নামের সংস্থাটি। পানি নিয়ে ভারতেও একাধিক প্রকল্পে কাজ করছে তারা। 

মাত্তি স্টেইনম্যানের পরিকল্পনার কথা জেনে এগিয়ে এসেছে প্রতিষ্ঠানটি।


জার্মান অনূর্ধ্ব–২০ দলে প্রতিনিধিত্ব করা স্টেইনম্যান বলেন, দু-তিনমাস আগে বিশুদ্ধ পানি নিয়ে কাজ করা হামবুর্গের সংস্থা ‘ভাইভা কন অ্যাগুয়া’-র সঙ্গে সঙ্গে যোগাযোগ করি। প্রথমদিকে পূর্ব আফ্রিকার দেশগুলোর জন্য অর্থ সাহায্য করছিলাম। পরবর্তীতে জানতে পারি ভারতেও ওই সংস্থার একাধিক প্রকল্প রয়েছে। তাই আমি এবার এই দেশের পানীয় জল প্রকল্পগুলোর জন্য অর্থ সংগ্রহ করছি। আমার ভক্ত-অনুরাগীদেরও এই কাজে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসার অনুরোধ করছি।


তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড