ভৈরবে বাসে কয়েলের আগুন, প্রাণ গেল ঘুমন্ত চালকের
  1. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  2. niloy@nongor.news : Creative Niloy : Creative Niloy
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  6. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  7. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
ভৈরবে বাসে কয়েলের আগুন, প্রাণ গেল ঘুমন্ত চালকের
মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৩:৪৩ পূর্বাহ্ন

ভৈরবে বাসে কয়েলের আগুন, প্রাণ গেল ঘুমন্ত চালকের

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬৯ জন পড়েছেন

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় কয়েল থেকে বাসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বাসে ঘুমন্ত এক চালক নিহত হয়েছেন। 

সোমবার ভোরে শহরের বাসস্ট্যান্ডসংলগ্ন ভৈরবপুর উত্তরপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। 

নিহত চালকের নাম আবুল হোসেন (৫৫)। তিনি নরসিংদীর পলাশ উপজেলার খালিশারটেক গ্রামের কিতাব আলীর ছেলে। 

জানা যায়, রাত ১১টার দিকে শহরের ভৈরবপুর উত্তরপাড়া এলাকায় ভৈরব- ঢাকাগামী বিসমিল্লাহ পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি ভেতর থেকে লক করে কয়েল জ্বালিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন চালক আবুল হোসেন। 

ভোর ৪টার দিকে মশার কয়েল থেকে বাসে আগুন ধরে যায়। এ সময় বাসের ভেতর ঘুমন্ত চালক আগুনে পুড়ে মারা যান। 

খবর পেয়ে ভৈরব ফায়ার সার্ভিসকর্মীসহ পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় ২০ মিনিট চেষ্টা চালিয়ে বাসের আগুন নেভাতে সক্ষম হন ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা। 
পরে পুলিশ চালকের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। 

ভৈরব ফায়ার স্টেশন অফিসার রাকিবুল হাসান জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছান। এ সময় ২০ মিনিট চেষ্টা চালিয়ে বাসের আগুন নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, মশার কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এতে বাসের ভেতর ঘুমন্ত অবস্থায় চালকের মৃত্যু হয়েছে।

ভৈরব থানার উপপরিদর্শক মো. মতিউজ্জামান জানান, পুলিশ মৃত চালকের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে আইনিব্যবস্থায় তার পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।

সূত্রঃ যুগান্তর

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড