বহু মার্কিন সংস্থা রিপাবলিকানদের অনুদান বন্ধ করছে
  1. news-desk@nongor.news : বার্তা ডেস্ক : বার্তা ডেস্ক
  2. niloy@nongor.news : Creative Niloy : Creative Niloy
  3. nisan@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. mdashik.ullah393@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  5. sultanashaila75@gmail.com : Shaila Sultana : Shaila Sultana
  6. ronia3874@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  7. sarowar@nongor.news : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
বহু মার্কিন সংস্থা রিপাবলিকানদের অনুদান বন্ধ করছে
সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৪:২৬ অপরাহ্ন

বহু মার্কিন সংস্থা রিপাবলিকানদের অনুদান বন্ধ করছে

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬০ জন পড়েছেন

ক্যাপিটল ভবনে হামলা এবং জো বাইডেনকে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে মেনে না নেওয়ার জন্য রিপাবলিকান সিনেটরদের অনুদান বন্ধ করছে একাধিক মার্কিন সংস্থা।

যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা রিপাবলিকান এমপিদের অনুদান বন্ধ করে দিচ্ছে। এর মধ্যে জেপি মর্গান, সিটি গ্রুপ, ম্যারিয়ট ইন্টারন্যাশনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা রয়েছে। খবর ডয়েচে ভেলের।

বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকরা গত বুধবার ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল ভবনে তাণ্ডব চালায়। গেট ভেঙে সিনেটের হলঘর পর্যন্ত পৌঁছে যায় তারা।

শুধু তাই নয়, বেশ কয়েকজন পার্লামেন্ট সদস্যের অফিসে ঢুকে জিনিসপত্র লণ্ডভণ্ড করে দেওয়া হয়। যখন তারা এ ঘটনা ঘটায়, তখন কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে সরকারিভাবে জো বাইডেনকে পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করার প্রস্তুতি চলছিল। হাঙ্গামার ফলে সাময়িক সময়ের জন্য অধিবেশন বন্ধ করেও রাখতে হয়। বেশ কয়েকজন সাংসদ আহত হন ঘটনায়।

পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ক্যাপিটলের বাইরে বের করার পর ফের অধিবেশন বসে। সেখানে বাইডেনের বিপক্ষে দাঁড়ান বেশ কয়েকজন রিপাবলিকান সিনেটর। তারা ট্রাম্পকে সমর্থন করে বলেন, নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে। ফলে বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে মেনে নিতে রাজি নন তারা।

গত ৩ নভেম্বর নির্বাচনের পর থেকেই কারচুপির অভিযোগ করছেন ট্রাম্প। কিন্তু আদালতেও তিনি কোনো তথ্যপ্রমাণ দিতে পারেননি। অভিযোগ বুধবার ট্রাম্পের বক্তৃতা শোনার পরই ক্যাপিটলে অভিযান চালান ট্রাম্প সমর্থকরা।

অনেকেই এ হামলাকে গণতন্ত্রের ওপর আঘাত হিসেবে মনে করছেন। তারই প্রভাব পড়েছে বিভিন্ন ব্যবসায়িক সংস্থার ওপর।

যেসব সংস্থা রিপাবলিকান সিনেটরদের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের জন্য অর্থ ব্যয় করে, তারা প্রকাশ্যে জানিয়ে দিয়েছে– ট্রাম্পকে যে সিনেটররা সমর্থন করেছেন, তাদের আর অর্থ সাহায্য করা হবে না।

ব্লু ক্রস ব্লু শিল্ড অ্যাসোসিয়েশন অ্যামেরিকার সবচেয়ে বড় জীবন বীমা সংস্থা। প্রতি তিনজন আমেরিকানের একজন এই বীমা সংস্থার গ্রাহক। বুধবারের ঘটনার পরে তারা একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলছে, ক্যাপিটলে যা ঘটেছে, তা মার্কিন গণতন্ত্রের ওপর আঘাত।

যারা সে ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের প্রতি নিন্দার ভাষা নেই। যে সিনেটররা ওই দিন বাইডেনের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন, তারাও আমেরিকার গণতান্ত্রিক নির্বাচন ব্যবস্থাকে অস্বীকার করেছেন। সে কারণেই তাদের আর অর্থ সাহায্য না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

একই কথা বলেছেন জেপি মর্গান। তাদেরও বক্তব্য– নির্বাচন ব্যবস্থাকে যারা মানেন না, তাদের অর্থ সাহায্য করার প্রশ্নই ওঠে না। রিপাবলিকানদের জন্য বড় অঙ্কের অর্থ সংগ্রহ করে জেপি মর্গান।

গত নির্বাচনেও তারা বহু রিপাবলিকান প্রার্থীর জন্য অর্থ সংগ্রহ করেছে। কিন্তু ক্যাপিটলে আঘাতের ঘটনা তারা মেনে নিতে রাজি হয়নি।

সিটি গ্রুপও একই কথা জানিয়েছে। তাদের বক্তব্য– ক্যাপিটল ভবনে তাণ্ডব চালানোর পর ট্রাম্প সব বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন। বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন ট্রাম্প সমর্থকরাও। সামগ্রিকভাবে এতে রিপাবলিকান পার্টির মস্ত ক্ষতি হয়েছে। সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্টরাও বুধবারের ঘটনার নিন্দা করেছেন।

সূত্রঃ যুগান্তর

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সৌজন্যে : নোঙর মিডিয়া লিমিটেড