নৌকার জয় অবশ্যই হবে : হাবিব হাসান

44

ঢাকা-১৮ উপনির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদ ব্যক্ত করে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হাবিব হাসান বলেছেন, ‘সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে।’

রাজধানীর উত্তরার ৫ নম্বর সেক্টরে আইইএস স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রের ৩ নম্বর কক্ষে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগের পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘সকাল থেকে ভোটাররা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দিচ্ছেন। জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী, নৌকার জয় অবশ্যই হবে।’

তিনি বলেন, নির্বাচনী প্রচারণার সময় দেখা গেছে নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। সারাদেশের মতো ঢাকা-১৮ আসনের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে এখানকার ভোটাররা নৌকায় ভোট দেবেন।

সকালে ভোটার সংখ্যা কিছুটা কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটার উপস্থিতি বাড়বে বলে তিনি জানান। সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে তিনি পরিবারের সদস্য ও দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ভোট কেন্দ্রে আসেন এবং ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

এদিকে এই আসনে বিএনপি মনোনীত এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন উত্তরা পূর্বথানাধীন আব্দুল্লাহপুর মালেকাবানু উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে সাংবাদিকদের কাছে বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে তাদের এজেন্টদের বের করে দেয়ার অভিযোগ করেন। তবে এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ প্রাথী হাবিব হাসান বলেন, তাদের এই অভিযোগ সঠিক নয়, কোন কেন্দ্র থেকেই এজেন্ট বের করে দেয়ার ঘটনা ঘটেনি। এটা বিএনপির বরাবরের মতো অসত্য একটি অভিযোগ।

এই আসনে সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে, চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এখানে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটাররা ভোট দিচ্ছেন।

এ দুই আসনে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ ৬ রাজনৈতিক দলের ৮ জন র্প্রার্থী। ঢাকা-১৮ আসনে প্রার্থী দিয়েছে প্রধান ৩ রাজনৈতিক দল- আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি।
আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহারা খাতুন গত ৯ জুলাই মারা যাওয়ায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করে জাতীয় সংসদ। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় এ আসনে উপনির্বাচন হতে যাচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, সুষ্ঠু ভোট গ্রহণে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে পর্যাপ্ত সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া দুই নির্বাচনী এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে ম্যাজিস্ট্রেট ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি সদস্য। নির্বাচনী এলাকায় তারা টহল দিচ্ছেন।

এখানে জাতীয় পার্টির মো. নাসির উদ্দিন সরকার, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. ওমর ফারুক, গণফ্রন্টের কাজী মো. শহীদুল্লাহ ও পিডিপির মো. মহিববুল্লা বাহার প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।
সূত্র : বাসস