মেয়র পদপ্রার্থী ফারুক আহম্মেদ বাবু’র জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ছাত্রনেতা আব্দুর রাকিব

189

আব্দুর রাকিবের ফেসবুক আইডিতে লিখেছেন

জন্মদিন শ্রদ্ধা, ভালোবাসা মানিকজোড়, প্রিয়জন, প্রয়োজন আমার ভাই জন্মদিনে একটাই চাওয়া, আমাদের সম্পর্কটা টিকিয়ে রাখা। আমি মানেই, আপনি, আপনি মানেই আমি আমরা থাকার লড়াইটা দৃঢ় হোক সব সময়ের সঙ্গী টিকে থাকবো, রাখবো। মহান আল্লাহ সহায় হোক।৷

উনার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে উনি বলেনঃ-

যুবনেতা ফারুক ভাই, আমার ভাই রাজনৈতিক মাঠে আমরা সহযোদ্ধা রাজনৈতিক ভাবে একজন ক্ষতিগ্রস্থ মানুষ, আমার মনে হয়েছে বিপদের দিনে, এই ক্ষতিগ্রস্থ অবস্থা থেকে ফারুক ভাই কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য, উনার পাশে আমার থাকা প্রয়োজন। এজন্য আমি উনার পাশে আছি, কাজ করছি নিজের সর্বচ্চটুকু দিয়ে।

ফারুক আহম্মেদ বাবু ভাই একজন জনপ্রতিনিধি, ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর, নাচোল পৌরসভার প্যানেল মেয়র নাচোল উপজেলা যুবলীগের কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক পৌরসভার বিচার বিভাগের সফল সাবকে সভাপতি, পৌরসভার টেন্ডার কমিটির আহবায় তাছাড়া বিভিন্ন সামাজিক ও জনকল্যানমূখি সংগঠনের সাথে জড়িত আছেন।

ফারুক আহম্মেদ বাবু ভাই কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পরেই উনি ঘোসনা দেন- জনগনের দোয়া ও সমর্থন এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতিক নৌকা পেলে আমি আগামী পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে ভোট করবো

ছাত্রনেতা আব্দুর রাকিব বলেন-

ফারুক ভাই দীর্ঘদিন থেকেই মেয়র হওয়ার জন্য মাঠে কাজ করছেন, বিভিন্ন কৌশলে তিনি এগিয়ে যাচ্ছেন
ফারুক আহম্মেদ বাবু ভাই একজন খোলা মনের বন্ধুত্ব সুলভ মানুষ, নেই কোন অহংকার
উনি প্যানেল মেয়র /যুবলীগের সেক্রেটারি এই টা কখন ও তার আচরণে পাওয়া যায়না, সকলের সাথে হাসিমুখে কথা বলেন। ফারুক ভাইয়ের অট্রালিকা হাসি সকলের মন কারে, পর-উপকারী ও জনপ্রিয় একজন মানুষ ফারুক ভাই।

আগামী মেয়র নির্বাচন সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে ছাত্রনেতা রাকিব বলেন-

আমি/আমরা, ফারুক ভাইয়ের সকল শুভাকাঙ্ক্ষীগন নিজের মতো করে সর্বচ্চ পরিশ্রম ও কাজ করছি

আমি/আমরা সকলেই নিজেই প্রার্থী এইটা ভেবে কাজ করছি, আর আমি সকলের কাজে আগ্রহ ও দরদ দেখেছি কাজে৷

সকলের সর্বচ্চ পরিশ্রম বৃথা হবে না, মহান আল্লাহ সহায় হবেন।

নাচোল উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা সাধারণ সম্পাদক জনাব, আব্দুল কাদের সম্পর্কে জানতে চাইলে ছাত্রনেতা আব্দুর রাকিব বলেন-

জননেতা, প্রিয় আব্দুল কাদের চাচার নিজের হাতে তৈরী করা বিশ্বস্থ সৈনিক, যুবনেতা ফারুক ভাই।
দু-সময়/সু-সময় আলাদা করতে পারেনি উনাদের
শক্তভাবে টিকিয়ে রেখেছেন এই বন্ধন।

সম্পর্ক তৈরী করার চেয়ে রক্ষা করা খুবই কঠিন।
যুগ যুগ, আজীবন থাকুক এই বন্ধন দৃঢ় থেকে সু-দৃঢ় হোক পথচলা। রাজপথের সহ-যোদ্ধা উনারা

চাচা-ভাতিজা’র সম্পর্ক,যেখানে রয়েছে চাচার শাসন, আদর, টেক-কেয়ার, ভাতিজা’র শ্রদ্ধা, সম্মান ও লিডারের প্রটোকল, পাশে থাকা সব সময়।

এক কথায় মধুর এই সম্পর্ক, মধুর থাকুক সর্বদা।

মহান আল্লাহ সহায় ছিলেন, আছেন এবং থাকবেন বলে প্রত্যাশা রাখেন।

ছাত্রনেতা আব্দুর রাকিব আরো বলেনঃ-

আমি নাচোল পৌরসভার প্রত্যেক টা এলাকায় ঘুরেছি, জনসাধারণের সাথে কথা বলেছি, বিভিন্ন তথ্য একত্রে করেছি সব মিলিয়ে বলা যায়ঃ-আমি শতভাগ আশা রাখছি-আমাদের পরিশ্রম ও ভাগ্যের সেতুবন্ধন একত্রী হবে, এবং আগামী পৌর নির্বাচনে জননেত্রী, আমাদের ছাত্রলীগের আপা দেশরত্ন শেখ হাসিনা, যুবনেতা ফারুক ভাইয়ের প্রতি আস্থা রাখবেন এবং নৌকা প্রতিক ফারুক ভাইকে দিবেন।

যুবনেতা ফারুক ভাই নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করলে শতভাগ বিজয়ী হবেন বলে ও জানান ছাত্রনেতা আব্দুর রাকিব।

সর্বপরি
ছাত্রনেতা আব্দুর রাকিব সকলের কাছে ফারুক ভাইয়ের দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামনা করেন। সকলের কাছে ফারুক ভাইয়ের জন্য দোয়া চেয়েছেন এবং পাশে থেকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করার অনুরোধ জানিয়েন।